সর্বভারতীয় ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেস (AITUC) – টীকা লেখাে। 

টীকা লেখাে: সর্বভারতীয় ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেস (AITUC)।   4 Marks/Class 10

উত্তর:-

ভূমিকা : ১৯২০ খ্রিস্টাব্দে মাদ্রাজে শ্রমিকদের সংগঠিত করার উদ্দেশ্যে অনুষ্ঠিত দেশব্যাপী সারা ভারত শ্রমিক সম্মেলন থেকেই জন্ম নেয় সর্বভারতীয় ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেস (AITUC)।

পটভূমি : ১৯১৯ খ্রিস্টাব্দে জাতীয় কংগ্রেসের অমৃতসর অধিবেশনে প্রথম শ্রমিকদের প্রশ্নকে গুরুত্ব দিয়ে আলােচনা করা হয় এবং প্রতিটি প্রাদেশিক সংগঠনকে শ্রমিক ইউনিয়ন গঠন করার জন্য নির্দেশ পাঠানাে হয়। জাতীয় কংগ্রেসের নাগপুর অধিবেশনে (১৯২০ খ্রি.) ও গয়া অধিবেশনে শ্রমিক আন্দোলনকে গুরুত্ব দিয়ে ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনকে পরিচালনার জন্য গঠিত হয় একটি বিশেষ কমিটি।

সর্বভারতীয় ট্রেড ইউনিয়ন গঠন : ১৯২০ খ্রিস্টাব্দে ৩০ অক্টোবর মাদ্রাজে সারা ভারত শ্রমিক সম্মেলনে ১৮টি শ্রমিক ইউনিয়নের ৮০৬ জন প্রতিনিধি যােগদান করে, যার ফলশ্রুতি হিসেবে জাতীয় কংগ্রেসের নেতৃত্বে গঠিত হয় শ্রমিকদের জন্য নিজস্ব সর্বভারতীয় ট্রেড ইউনিয়ন (AITUC) সংগঠন। লালা লাজপত রায় এই সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন, জোসেফ ব্যাপিস্তা ছিলেন সহসভাপতি এবং সম্পাদক ছিলেন দেওয়ান চমনলাল।

কংগ্রেসের দৃষ্টিভঙ্গি : জাতীয় কংগ্রেসের নেতৃবৃন্দের মধ্যে লালা লাজপত রায়, চিত্তরঞ্জন দাশ প্রমুখ সর্বভারতীয় ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেসের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রাখতেন। লাজপত রায় ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দে সর্বভারতীয় ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচিত হন।

উপসংহার : শ্রমিক আন্দোলন সম্পর্কে জাতীয় কংগ্রেসের জটিল দৃষ্টিভঙ্গির পরিপ্রেক্ষিতে শ্রমিক শ্রেণি কখনাে-কখনাে জাতীয় আন্দোলন থেকে মুখ ফিরিয়ে রাখলেও এ কথা অনস্বীকার্য যে, সর্বভারতীয় ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেস প্রতিষ্ঠিত হওয়ায় ভারতীয় শ্রমিক আন্দোলনের ক্ষেত্রে একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা হয়।

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!