নিম্নবর্গীয় ইতিহাস বিশ্লেষণ করাে।

নিম্নবর্গীয় ইতিহাস বিশ্লেষণ করাে। Mark 4 | Class 10

উত্তর:-

ভূমিকা : ইংরেজি অভিধানে ‘সাবল্টান’ বা নিম্নবর্গের কথা বােঝাতে সামরিক বাহিনীর নিম্নপদস্থ অফিসারদের বােঝায়। কার্ল মার্কস নিম্নবর্গীয়দের বলেছেন ‘প্রােলেতারিয়েত’। ইতালির মার্কসবাদী বুদ্ধিজীবী আন্তোনিও গ্রামশি ইতিহাসচর্চায় প্রথম এই শব্দটি ব্যবহার করেন। তিনি এই প্রােলেতারিয়েতদের জীবনচর্যা ও আচার-আচরণের ওপরেই বেশি জোর দিয়েছেন।  

নিম্নবর্গের ইতিহাস : ভারতে নিম্নবর্গীয় ইতিহাসচর্চার প্রবর্তক রণজিৎ গুহ নিম্নবর্গ বলতে বুঝিয়েছেন কৃষক, শ্রমিক, শহুরে জনতা এবং নিম্নবর্গের মহিলাদেরও। নিম্নবর্গের ইতিহাস বলতে  বােঝায়, সমাজের নীচুতলার মানুষের ইতিহাসকে। ১৯৮২ খ্রিস্টাব্দে রণজিৎ গুহ নিম্নবর্গের ইতিহাস রচনা পদ্ধতির কথা তুলে ধরেন যা ‘সাবল্টার্ন স্টাডিজ’ নামে পরিচিত। 

বৈশিষ্ট্য : ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ দিকগুলি হল—

প্রথমত, প্রচলিত ইতিহাসচর্চায় সমাজের উচ্চবর্গের ভূমিকার । ওপর গুরুত্ব আরােপ করা হত, কিন্তু এই ইতিহাসচর্চার নিম্নবর্গ অর্থাৎ, কৃষক, শ্রমিক, শহুরে জনতা, আদিবাসী এবং সমাজের নিম্নস্তরের মানুষ ও মহিলাদের ভূমিকাসহ বিক্ষোভ, বিদ্রোহ, অবস্থান ও মর্যাদার ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

দ্বিতীয়ত,  নিম্নবর্গের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের বিশ্লেষণের পাশাপাশি কৃষক, শ্রমিক প্রভৃতি শ্রেণির ‘শ্রেণি-চৈতন্য’-কে তুলে  ধরা হয়েছে।

তৃতীয়ত, নিম্নবর্গের ঐতিহাসিকদের মধ্যে রণজিৎ গুহ ছাড়া  অন্যান্য উল্লেখযােগ্য ঐতিহাসিক হলেন জ্ঞান পাণ্ডে, স্টিফেন  হেনিংহাম, দীপেশ চক্রবর্তী, গৌতম ভদ্র, শাহিদ আমিন প্রমুখ।

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!