মিরাট ষড়যন্ত্র মামলা (১৯২৯ খ্রি.) -টীকা লেখাে। 

টীকা লেখাে : মিরাট ষড়যন্ত্র মামলা (১৯২৯ খ্রি.)।   4 Marks/Class 10

উত্তর:-

ভূমিকা : ১৯২৯ খ্রিস্টাব্দের ২০ মার্চ ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযােগে ভারতের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ৩২জন কমিউনিস্ট ও কংগ্রেস নেতাকে গ্রেপ্তার করে তাদের বিরুদ্ধে যে মামলা রুজু করা হয়, তা শ্রমিক আন্দোলনের ইতিহাসে মিরাট ষড়যন্ত্র মামলা নামে খ্যাত।

প্রেক্ষাপট : ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দে এস. এ. ডাঙ্গে, মিরাজকর প্রমুখ শ্রমিক নেতার নেতৃত্বে বােম্বাই গিরনী কামগার ইউনিয়নের দেড় লক্ষ শ্রমিক ছমাস ব্যাপী বােম্বাই-এর বস্তুকলে ধর্মঘট চালায়। এই আন্দোলনের বিরুদ্ধে হাতিয়ার হিসেবে ‘Public Safety Act এবং ‘Trade disputes Act’ (এপ্রিল ১৯২৯ খ্রিস্টাব্দ) প্রণয়ন করা হয়, যার মূল উদ্দেশ্য শ্রমিক আন্দোলনের মেরুদণ্ড ভেঙে দেওয়া। ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দে AITUC-র ঝরিয়া অধিবেশনে এই আইনের তীব্র নিন্দা করা হয়।

নেতাদের গ্রেপ্তার : ১৯২৯ খ্রিস্টাব্দে ২০ মার্চ ‘Public Safety Act’ এবং ‘Trade Disputes Act’ -এর দ্বারা মুজাফফর আহমেদ, এস ভি ঘাটে, এস এ ডাঙ্গে, পি সি যােশী, মিরাজকর, ধরণী গােস্বামী, গঙ্গাধর অধিকারী-সহ ৩২ জন শ্রমিক নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

পরিণতি : দীর্ঘ সাড়ে চার বছর মামলা চলার পর মােট ২৭জন বন্দির বিভিন্ন মেয়াদে অত্যধিক কঠোর দণ্ডাদেশ হয়। ১৯৩৩ খ্রিস্টাব্দের ৩ আগস্ট এই মামলা সমাপ্ত হয়। ব্রিটিশ এমক দল এই মামলার রায়কে ‘Judicial Scandal’ বলে নিন্দা করে।

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!