কন্যাশ্রী প্রকল্পের বিশ্বাখেতাব – বাংলা প্রবন্ধ রচনা l

কন্যাশ্রী প্রকল্পের বিশ্বাখেতাব

ভূমিকা : কবি রবীন্দ্রনাথ প্রায় একশাে বছর আগে লিখেছিলেন, “নারীকে আপন ভাগ্য জয় করিবার/কেন নাহি দিবে অধিকার/হে বিধাতা?”—পরাধীন দেশে কবির উত্থাপিত এই প্রশ্নের উত্তর একবিংশ শতকের স্বাধীন ভারত তথা বাংলা আজও খুঁজে পেয়েছে কি? এখনও দেশের অধিকাংশ মেয়ে শিক্ষার মূলস্রোত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে অতি অল্প বয়সেই নিতান্ত সাংসারিক সামগ্রী হিসেবেই বিবেচিত হয়। এখনও কন্যাভ্ৰূণ হত্যা কিংবা বাল্যবিবাহের মতাে নির্দয়তা সমাজে স্বীকৃত। বাংলার কৃতী মানুষেরা অনেক উন্নত ভাবনায় নিজের রাজ্যকে এগিয়ে নিয়ে গেলেও, এখনও মেয়েদের এগিয়ে চলার পথ প্রতিবন্ধকতায় পূর্ণ। মেয়েদের স্বনির্ভর করার লক্ষ্যে ২০১৩ সালের অক্টোবর মাস থেকে রাজ্য। সরকার চালু করে কন্যাশ্রী প্রকল্প।

প্রকল্পের নিয়ম, উৎস ও বাস্তবতা : কন্যাশ্রী প্রকল্প অনুসারে, যেসব পরিবারের বাৎসরিক আয় ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা বা তার চেয়ে কম, সেই পরিবারের ১৩ (অষ্টম শ্রেণি) থেকে ১৮ বছরের (দ্বাদশ শ্রেণি) ছাত্রীরা বছরে ৭৫০ টাকা বৃত্তি হিসেবে পায়। যদিও অনাথ বা প্রতিবন্ধী ছাত্রীদের ক্ষেত্রে আয়ের কোনাে উধ্বসীমা নেই। অতিসম্প্রতি রাজ্য সরকার ও নারীপ্রগতির স্বার্থে সরকার যখন এভাবে সক্রিয়তার সঙ্গে অংশগ্রহণ করে, তখন সমাজের সর্বস্তরে তার একটি সদর্থক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

কন্যাশ্রী প্রকল্পের বিশ্বখেতাব : রাষ্ট্রপুঞ্জের ওয়ার্ল্ড পাবলিক সার্ভিস (জন পরিষেবা) ফোরাম বিভিন্ন দেশের কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পকে চিহ্নিত করে বিভিন্ন বিভাগে পুরস্কার দিয়ে থাকে। সেই হিসেবে ভারতের কয়েকটি রাজ্যকে বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য পুরস্কৃত করা হয়। পশ্চিমবঙ্গের কন্যাশ্রী প্রকল্প তাদের মধ্যে একটি। ২০১৭ সালের ২৩ জুন নেদারল্যান্ডস-এর রাজধানী হেগ-এ কন্যাশ্রী প্রকল্পকে সেরা জনপরিসেবার স্বীকৃতি হিসেবে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। এই বিভাগে ৬২টি দেশের ৫৫২টি মনােনয়ন জমা পড়েছিল। তার মধ্যে কন্যাশ্রী প্রকল্প সেরার সম্মান পায়।

উপসংহার : ‘কন্যাশ্রী প্রকল্পটি নিঃসন্দেহে একটি ভালাে প্রকল্প। কন্যাশ্রী প্রকল্প মেয়েদের শিক্ষার প্রতি আগ্রহী করে তুলেছে, যা সমাজ পরিবর্তনের অন্যতম লক্ষ্যে সমর্পিত হতে পারবে। কন্যাসন্তানেরা আগামী দিনে সমাজে মাথা তুলে দাঁড়াতে ও স্বীকৃতি পেতে পারবে এবং স্বনির্ভর হয়ে দেশের সম্পদ হয়ে উঠবে—এই প্রত্যাশা সার্থক হবে।

আরো পড়ুন

আন্তর্জাতিক যােগদিবস – বাংলা প্রবন্ধ রচনা l

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এ পি জে আব্দুল কালাম – বাংলা প্রবন্ধ রচনা l

মঙ্গল অভিযানে ভারত  – বাংলা প্রবন্ধ রচনা l

পশ্চিমবঙ্গের সাম্প্রতিক বন্যা ও তার প্রতিকার – বাংলা প্রবন্ধ রচনা l

ভূস্বর্গ ভূমিকম্প – বাংলা প্রবন্ধ রচনা l

Read More »

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!