দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির প্রভাব আলােচনা করাে

প্রশ্ন – দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির প্রভাব আলােচনা করাে। Class 10 | 4 Marks

উত্তর – ভূমিকা : প্রাক্-স্বাধীনতা পর্বে দেশীয় রাজ্যগুলির ভারত অন্তর্ভুক্তিকরণ সমস্যা ছিল প্রধানতম সমস্যা। মূলত সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের উদ্যোগেই দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তি সম্পন্ন হয়। এবং ভারত সমস্যামুক্ত হয়।

প্রভাব : দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তি ছিল খুব তাৎপর্যপূর্ণ ও প্রভাববিস্তারকারী ঘটনা। কারণ—

১। ভৌগােলিক ঐক্যপ্রতিষ্ঠা : ভারতের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়েছিটিয়ে থাকা ছােটো-বড়াে রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির ফলে ভারতের ভৌগােলিক ও রাজনৈতিক ঐক্য সম্পন্ন হয়।। 

২। অর্থনৈতিক উন্নতি : অর্থনৈতিক দিক দিয়ে পিছিয়ে পড়া এবং রাজতান্ত্রিক দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির ফলে ভারতের সর্বত্র একই ধরনের অর্থনৈতিক নীতি ও গণতান্ত্রিক আদর্শ পরিব্যাপ্ত হয়।

৩। ধর্মনিরপেক্ষতা : দেশীয় রাজ্যের অন্তর্ভুক্তির প্রশ্নকে কেন্দ্র করে ভারতের ধর্মনিরপেক্ষতার ভিত্তিও শক্তিশালী হয়। উদাহরণস্বরূপ বলা যায় জুনাগড়, হায়দরাবাদ ও কাশ্মীর সমস্যাকে কেন্দ্র করে হায়দরাবাদের নিজাম বিরােধী বা জুনাগড়ের নবাববিরােধী আন্দোলনের সপক্ষে বা কাশ্মীরে পাকিস্তানের হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে ভারতীয় মুসলমানগণ ভারত সরকারকেই সমর্থন করে।

৪। বৈচিত্র্য : ভারতের দেশীয় রাজ্যগুলির সিংহভাগ শান্তিপূর্ণ উপায়ে ভারতে যােগদানের ফলে ভারতীয় ঐতিহ্য, বৈচিত্র্য ও ঐক্য বজায় রাখার পাশাপাশি গৃহযুদ্ধ এড়িয়ে ভারতে শান্তি প্রতিষ্ঠা সম্ভব হয়েছে।

উপসংহার : এভাবে দেখা যায় যে, ভারতে ব্রিটিশ শাসনের অবসান ও পাকিস্তান রাষ্ট্রের সৃষ্টি ভারতের অখণ্ড জাতীয়তাবাদের আদর্শকে ক্ষুন্ন করলেও দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তিকরণ ভারতের রাজনৈতিক ঐক্য ও সংহতি সুনিশ্চিত হয়।

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!