দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির কারণগুলি বিশ্লেষণ করাে। অথবা, দেশীয় রাজ্যগুলির অন্তর্ভুক্তির উদ্দেশ্য সম্পর্কে সংক্ষেপে আলােচনা করাে। 

দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির কারণগুলি বিশ্লেষণ করাে।
অথবা, দেশীয় রাজ্যগুলির অন্তর্ভুক্তির উদ্দেশ্য সম্পর্কে সংক্ষেপে আলােচনা করাে।    4 Marks/Class 10

উত্তর:-

ভূমিকা : দেশীয় রাজ্যগুলি অভ্যন্তরীণ ক্ষেত্রে ছিল স্বশাসনের অধিকারী ; তাই এই রাজ্যগুলিকে ভারতের অন্তর্ভুক্ত করা ছিল জরুরি। 

ভারতভুক্তির কারণ : দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তির উল্লেখযােগ্য কারণগুলি হল— 

১. রাজ্যগুলির গুরুত্ব : ভারতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ৫৬২টি দেশীয় রাজ্য ছিল সমগ্র ভারত-ভূখণ্ডের ৪৮ শতাংশ এবং এই রাজ্যগুলির লােকসংখ্যা ছিল ৯ কোটি। 

২. জাতীয়তাবাদী আদর্শ : ভারতের জাতীয় স্তরের নেতারা অখণ্ড ভারতীয় জাতীয়তাবাদের আদর্শে বিশ্বাসী হওয়ায় তাঁরা ভারত ভূখণ্ডের ভেতরে কোনাে বিচ্ছিন্ন স্বাধীন রাষ্ট্রের অস্তিত্ব মেনে নিতে রাজি ছিলেন না।

৩. জনগণের আকাঙ্ক্ষা : দেশীয় রাজ্যগুলি ছিল মধ্যযুগায় ভাবধারা-যুক্ত রাজতান্ত্রিক রাজ্য এবং স্বৈরাচারী শাসন ও কুসংস্কারগ্রস্ত সমাজের কারণে এখানের তথাকথিত প্রজাদের অধিকাংশ এই অবস্থার পরিবর্তন চেয়েছিল।

৪.প্রজা-আন্দোলন : গণতন্ত্র ও স্বাধীনতার দাবিতে ‘প্রজা আন্দোলন গড়ে উঠলে দেশীয় রাজ্যগুলিতে ভারতের জাতীয় নেতৃবর্গ ও কংগ্রেসের পক্ষে এই দাবিকে উপেক্ষা করা সম্ভব ছিল না l এই সমস্যার সমাধান ছিল রাজ্যগুলির ভারতভুক্তি।

উপসংহার : পূর্বোক্ত আলােচনা থেকে দেখা যায় যে, দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তিকরণ ভারতের ভৌগােলিক অখণ্ডতা ধরে রাখা এবং জাতীয় ঐক্য ও সংহতির পক্ষে ছিল জরুরি। একারণেই সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলের নেতৃত্বে দেশীয় রাজ্যগুলির ভারতভুক্তি সম্পূর্ণ হয়।

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!