ছাত্রজীবনে খেলাধূলোর গুরুত্ব | চরিত্রগঠনে খেলাধূলোর ভূমিকা | বাংলা প্রবন্ধ রচনা

ছাত্রজীবনে খেলাধূলোর গুরুত্ব | চরিত্রগঠনে খেলাধূলোর ভূমিকা | বাংলা প্রবন্ধ রচনা | Madhyamik | H.S

ছাত্রজীবনে খেলাধূলোর গুরুত্ব

ভূমিকা: 

মানুষের সহজাত আকাঙ্ক্ষা হলাে এক সুন্দর ও সুস্থ জীবন। “Health is Wealth” – স্বাস্থ্যই সম্পদ। ব্যাক্তিগত জীবনে,পারিবারিক জীবনে, জাতীয় জীবনে শক্তি ও সমৃদ্ধি অর্জনের দ্বার উন্মুক্ত করে দেয় সুঠাম দেহ- ললাট দেশে এঁকে দেয় সাফল্যের জয় তিলক। অপরপক্ষে রুগ্ন দুর্বল মানুষ জীবনের সকল আনন্দ থেকে বঞ্চিত। খেলাধুলাে শরীরচর্চার একটি অঙ্গ। খেলার মধ্যে রয়েছে শরীর চালনা। যা মানুষের শারীরিক দক্ষতা ক্রমশ বাড়িয়ে তােলে।পাশাপাশি অন্তহীন আনন্দের উপকরণ হল খেলা। খেলার আনন্দ আর কোথাও পাওয়া যাবে না। যারা রুগ্ন দুর্বল তারা এই আনন্দ থেকে বঞ্চিত এমনকি জীবন যুদ্ধে পদে পদে হয় পরাভূত। এই জন্যই বলা হয় – “চাই বল, চাই স্বাস্থ্য, আনন্দ উজ্জ্বল পরমায়ু, সাহস-বিস্তৃত বক্ষপট”।

খেলাধুলার উপযােগিতা: 

সুস্থ সবল দেহে সুস্থ সবল মন বিরাজ করে। অসুস্থ শরীরে পরিশ্রম ক্ষমতা কমার সাথে সাথে মন ও খিট খিটে হয়ে যায়। সুস্থ সবল দেহে বিরাজ করে কঠোর শক্তি, মনে থাকে দুর্জয় ক্ষমতা, অপরিমিত উৎসাহ ও উদ্দীপনা। কঠোর পরিশ্রম করে জীবনে সাফল্য অর্জন করতে হয় তাই মন ও শরীরকে সুস্থ রাখতে খেলাধুলার প্রয়ােজনীয়তা অপরসীম। খেলাধুলা মানেই শরীরচর্চা আর নিয়মিত শরীরচর্চার মাধ্যমেই শরীরকে দীর্ঘদিন সুস্থ রাখা যায়। 

খেলাধুলার প্রকৃতি:

যাকে আমরা সহজ ভাষায় খেলাধুলাে বলি তার প্রকৃত স্বরূপ জেনে নেওয়া আমাদের অবশ্যই দরকার। এখানে খেলার সাথে ধুলা শব্দটি সংযােজিত হয়েছে। অর্থাৎ খেলার সাথে রয়েছে ধুলার সংস্পর্শ। প্রকৃতির উন্মুক্ত প্রান্তরে খােলা আকাশের নীচে মুক্ত বাতাসে যে খেলা হয় তা-ই খেলাধুলা। যেমন – ফুটবল, ক্রিকেট, দৌড়, লাফ, টেনিস, প্রভৃতি। বর্তমানের মােবাইল গেমের মধ্যে রয়েছে অনেক ক্ষতিকর প্রভাব তাই খেলার প্রকৃতি অনুসারে খেলাকে বেছে নেওয়া আবশ্যক। 

স্কুল জীবনে খেলাধুলাে:

বর্তমান খেলাধুলার বয়সে শৈশবেই শিশুর কাঁধে চেপেছে বই -এর বােঝা। বাল্য কাল থেকে তরুণ বয়স শরীর গঠনের প্রধান সময় বলে শরীরচর্চা ও ব্যায়ামের পাঠক্রম গৃহীত হয়েছে সকল সভ্যদেশের স্কুল কলেজীয় শিক্ষা পর্যায়ে। ছাত্র ছাত্রীদের শরীরচর্চার জন্য খেলাধুলাে ও ব্যায়াম বহুরকম – দৌড়ঝাপ, ক্রিকেট, ফুলবল, হাডুডু, সাঁতার, যােগাসন ইত্যাদি। একজন সুস্থ সবল সফল মানুষ হতে বিদ্যালয়ে পড়াশােনার পাশাপাশি খেলাধুলার প্রয়ােজনও রয়েছে। 

খেলাধুলা ও ভ্রাতৃত্ববােধ:

আজকের সময়ে খেলাধুলা বিশ্বব্যাপী অত্যন্ত জনপ্রিয়। ছাত্র জীবন থেকেই রাজনীতির ময়দান যখন তিক্ত কলহে কলুষিত, খেলার খােলা মাঠ তখন বিশ্ব ভাতৃত্বের প্রতীক। মানুষকে প্রীতির বন্ধনে বাঁধে খেলাধুলাে। ভাতৃত্ববােধের সহৃদয় এক উষ্ণ আনন্দের বাতাবরণে হারিয়ে যায় জয় পরাজয়ের হিসেব। খেলোয়াড় এর প্রতি থাকে সমর্থকদের ভালােবাসা। প্রত্যেক দলের সমর্থকরা চায় তাদের মনের মত দল জিতুক কিন্তু এখানে হার জিত বড়াে কথা নয়। বড়াে কথা হলাে খেলা। খেলার মাঠে একদিকে যেমন প্রতিযােগিতা তেমনই বিনােদন। খেলার মাঠ ভিন্ন দেশের খেলােয়াড়ের সাথে খেলােয়াড়ের বন্ধুত্ব স্থাপনের জায়গা। 

খেলাধুলাে ও চরিত্র গঠন:

আমাদের সকলের খেলার প্রতি রয়েছে এক সম্মােহনী আকর্ষণ। যে মানুষ খেলতে ভালােবাসে তার মনে কখনও সংকীর্ণতা মলিনতার জায়গা হয়না। যেকোনাে খেলাতেই কৃতিত্ব অর্জন করতে হলে প্রয়ােজন শৃঙ্খলাবােধ তাই খেলাধুলার মধ্য দিয়েই জন্ম হয় শৃঙ্খলাবােধ। খেলাধুলাে শুধু শরীর গঠন করে না, গঠন করে স্বভাব চরিত্র। খেলা ধুলাের মধ্য দিয়েই তৈরী হয় খেলােয়াড় সুলভ মনােভাব। পুরুষ চৈতন্যের প্রাথমিক অভ্যুদয় ঘটে খেলার মাঠে – Sportsman like spirit নামে অভিহিত যা। 

খেলাধুলার মান:

দিনদিন বাড়ছে খেলা ধুলাের মান। প্রত্যেক খেলােয়াড় প্রতিনিয়ত নিজেকে দক্ষ করতে ব্যস্ত। প্রতিবছরের পুরনাে রেকর্ড ভাঙছে নতুন নতুন খেলােয়াড়। এব্যাপারে প্রত্যেক দেশ ও সরকার এখন সচেতন। খেলাধূলা-কে আজ দেশ ও জাতির অগ্রগতির দর্পণ বলে মনে করা হয়। 

উপসংহার:

জীবনের লম্বা রাস্তা মােটেই সােজা নয়। প্রত্যেক পদে পদে মানুষকে নানান বাধা বিপত্তির সম্মুখীন হতে হয়। তাই নীরােগ সুস্থ সবল শরীরে প্রয়ােজন সকল বাধা কাটিয়ে ওঠার শক্তি। এজন্য খেলাধুলাে প্রয়ােজন। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কণ্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে তাই কামনা করি : “চাই বল, চাই স্বাস্থ্য, আনন্দ উজ্জ্বল পারমায়ু, সাহস-বিস্তৃত বক্ষপট”।

আরো পড়ুন

সর্বশিক্ষা অভিযান – বাংলা প্রবন্ধ রচনা

ছাত্রজীবন – মানস মানচিত্র অবলম্বনে বাংলা প্রবন্ধ রচনা

ইনটারনেট এবং আধুনিক জীবন – মানস মানচিত্র অবলম্বনে বাংলা প্রবন্ধ রচনা

আধুনিক জীবনে সংবাদপত্রের ভূমিকা – মানস মানচিত্র অবলম্বনে বাংলা প্রবন্ধ রচনা

মানবধর্ম – মানস মানচিত্র অবলম্বনে বাংলা প্রবন্ধ রচনা

Read More »

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!