সশস্ত্র বিপ্লবী আন্দোলনে নারীদের যােগদানের চরিত্র বিশ্লেষণ করাে। অথবা, বাংলার বিপ্লবী আন্দোলনে নারীদের ভূমিকা লেখাে। 

সশস্ত্র বিপ্লবী আন্দোলনে নারীদের যােগদানের চরিত্র বিশ্লেষণ করাে।
অথবা, বাংলার বিপ্লবী আন্দোলনে নারীদের ভূমিকা লেখাে।    4 Marks/Class 10

উত্তর:-

ভূমিকা : সশস্ত্র বিপ্লবী আন্দোলনে নারীরা তাদের সচেতনতার পরিচয় দিয়েছেন, এ কথা অনস্বীকার্য।

চরিত্র : বিপ্লবী আন্দোলনের নারীদের যােগদানের চরিত্র হল— 

১. সহযােগী ভূমিকা : ১৯২০ খ্রিস্টাব্দের আগে অনুশীলন সমিতি, যুগান্তর দল, বেঙ্গল ভলান্টিয়ার্স, চট্টগ্রামের বিপ্লবী সমিতি দলগুলিতে কোনাে মহিলারই সদস্যপদ ছিল না। এক্ষেত্রে যে কাজগুলি তারা করতেন সেগুলি হল স্বাধীনভাবে সহযােগীর কাজ। 

২. বিপ্লবীদের সাহায্যদান : গােপন চিঠি বা আগ্নেয়াস্ত্র পৌছে দেওয়া, সেগুলিকে সুরক্ষিত রাখা, বিপ্লবীদের আশ্রয় দান করা ইত্যাদি বিভিন্ন আপাত নিরীহ অথচ বিপজ্জনক কাজগুলির সঙ্গে তারা নিজেদের যুক্ত রাখতেন। 

৩.মধ্যবিত্ত পরিবার : এঁরা প্রায় সকলেই ছিলেন মধ্যবিত্ত পরিবারভুক্ত, দেশের রাজনীতির সঙ্গে যাঁদের ঘনিষ্ঠ যােগাযােগ ছিল।

৪. বিপ্লবী কার্যকলাপ : কুমিল্লার দুই কিশােরী ছাত্রী শান্তি ঘােষ ও সুনীতি চৌধুরি, কলকাতার ডায়ােসেশন কলেজের ছাত্রী বীণা দাস, চট্টগ্রাম খাস্তগীর হাইস্কুলের ছাত্রী কল্পনা দত্ত এবং ঢাকার বেঙ্গল ভলান্টিয়ার্সের সদস্য উজ্জ্বলা মজুমদারের নাম বিশেষভাবে স্মরণীয়। 

৫. প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার : বাংলার প্রথম মহিলা শহিদ প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার চট্টগ্রামের পাহাড়তলী ইউরােপীয় ক্লাব আক্রমণে নেতৃত্ব দিয়ে অসীম সাহসিকতার পরিচয় দেন এবং প্রাণ বিসর্জন দেন। 

৬. আজাদ হিন্দ বাহিনী : আজাদবাহিনীর নারী ব্রিগেড-এর অসীম সাহসী মহিলা সৈনিকরা চরম প্রতিকূলতার মুখেও কৃতিত্বের পরিচয় দিয়েছেন। বাঙালি মেয়েদের মধ্যে শিপ্রা সেন, রাণু ভট্টাচার্য, গাঙ্গুলি এবং এঁদের অধ্যক্ষ লক্ষ্মী স্বামীনাথন-এর অবদান অবিস্মরণীয়।

Note: এই আর্টিকেলের ব্যাপারে তোমার মতামত জানাতে নীচে দেওয়া কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করতে পারো। ধন্যবাদ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!